বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪৩ অপরাহ্ন

নোটিশ :
✆ন্যাশনাল কল সেন্টার:৩৩৩| স্বাস্থ্য বাতায়ন:১৬২৬৩|আইইডিসিআর:১০৬৬৫|বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন:০৯৬১১৬৭৭৭৭৭
সংবাদ শিরোনাম
বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ ইসহাক এর দাফন সম্পন্ন ঈদ মুবারক চট্টগ্রামে একুশের কণ্ঠ’র ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত বান্দরবানে কম্বিং অপারেশন শুরু : সেনাপ্রধান শবেকদর সম্পর্কে কোরআন-হাদিসে যা বলা হয়েছে মক্কায় ব্যবসায়ী আলহাজ্ব আবদুল হাকিমের উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া মাহফিল আমুচিয়া ইউনিয়নের ইমাম, মোয়াজ্জিনদের মাঝে প্রবাসী এমদাদুল ইসলামের ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ জেলা প্রশাসকের নিকট বিপ্লবী তারকেশ্বর দস্তিদার স্মৃতি পরিষদ’র স্মারকলিপি প্রদান বোয়ালখালীতে জোরপূর্বক জায়গা দখলের পাঁয়তারা অনেকটা অভিমান নিয়েই যেন চলে গেলেন মোহাম্মদ ইউসুফ : ক্রীড়াঙ্গনে শোকের ছায়া

বোয়ালখালীতে জোরপূর্বক জায়গা দখলের পাঁয়তারা

ফেইসবুকে নিউজটি শেয়ার করুন...

বোয়ালখালী প্রতিনিধি:

বোয়ালখালীতে জোরপূর্বক ও অন্যায়ভাবে ভূমিদুস্যদের সহায়তায় জায়গা দখল করার পায়তারা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে । প্রকৃত মালিক মালিকদের সীমানা বেড়া ও তাদেরকে জীবন নাশের হুমকী প্রদান করছে বলে জানা গেছে । এ ব্যাপারে অতিরিক্ত জলা ম্যাজিষ্ট্রেট(দক্ষিণ) আদালত, চট্টগ্রাম এর বরাবরে একটি মিচ মামলা দায়ের করা হয়েছে । যার নং ২৮০/ ২০২৪ । প্রকৃত মালিক মো: দৌলত মিয়া গং ও আমোক্তার নামা মূলে বাদী আমজাদ হোসেন এ মামলা দায়ের করেন । মামলার বিবাদী হলেন, ১। মাহাম্মদ ইদ্রিস(৬৩), পিতা-মত খলিলুল রহামন ২। মাহম্মদ নুরুল কবির(৩০), পিতা-মাহাম্মদ ইদ্রিস ৩। মোহাম্মদ তসলিম(৪০), পিতা-মৃত মাহম্মদ ইসমাইল ৪। মোহাম্মদ সলিম(৪৫), পিতা-ঐ ৫। মাহাম্মদ হাসান(২৫), পিতা-ঐ ।জানা যায়,বোয়ালখালী উপজেলার উত্তর আকুবদন্ডির শরীফ পাড়ায় এ ঘটনাটি ঘটেছে। মামলার সূত্র মতে, বাদী আমজাদ হোসেন বলেন, আমরা সহজ সরল আইনমান্যকারী লোক হই। পক্ষান্তরে প্রতিপক্ষগণ ভুমিদুস্য ও সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক হয়। অপরের সহায় সম্পত্তি আত্মসাৎ করা তাদের কাজ।তিনি বলেন, তপশীলোক্ত সম্পত্তি চট্টগ্রাম জেলার বোয়ালখালী উপজেলার আকুবদন্ডী মৌজার সম্পত্তি হয়। তপশীলোক্ত বি,এস ১০২৩নং খতিয়ানর রেকর্ডীয় মালিক ছিলেন প্রার্থীকের পূর্ববর্তী মোহাম্মদ নাজের, মোহাম্মদ মিয়া, সর্বপিতা- মত আবদুল হাকিম এবং রোশন আরা বগম, স্বামী-মৃত মোহাম্মদ মিয়া। তাহাদের নাম উক্ত খতিয়ান জরিপ প্রচার রহিয়াছে। তপশীলের বি,এস ১০২৩নং খতিয়ান ২৮৩৫ দাগ ০৬ শতকরা অন্দর প্রতিপক্ষ গণের পূর্ববর্তী মোহাম্মদ নাজের। ১৬ আনা অংশ ১.৮০ শতক, মোহাম্মদ মিয়া। আনা অংশে ১.৫০ শতক, রোশন আরা বেগম ১৬ আনা অংশে ০.৩০ শতক। প্রর্থীকগণের পূর্ববর্তী মােহাম্মদ নাজের, মোহাম্মদ মিয়া এবং রোশন আরা বেগম তপশীল বি,এস ২৮৩৫ দাগ (১.৮০+১.৫০+.৩০)=৩.৬০ শতক সম্পত্তিতে ভোগ দখলে থাকা অবস্থায় মোহাম্মদ নাছের, পিতা-মরহুম আবদুল হাকিম মৃত্যুবরণ করিলে তাহার ত্যাজ্য ০১.৮০ শতক সম্পত্তি সহ অপরাপর সম্পত্তি তাহার তিন পুত্র ১-২ ও৭নং প্রার্থীক প্রাপ্ত হয়। অপর দিকে মোহাম্মদ মিয়া তপশীল বর্ণিত বি, এস ১০২৩ নং খতিয়ান বি, এস ২৮৩৫ দাগ ১.৫০ শতক সম্পত্তি সহ অনালিশী অপরাপর সম্পত্তিত মালিক স্বত্ববান হইয়া ভাগ দখল স্থিতি থাকা অবস্থায় ১-২ ও ৭ নং প্রার্থীগণের মাতা মোছাম্মৎ লুৎফর নেছা, স্বামী-মােহাম্মদ নাজের এর নিকট বিগত ১২/০৫/১৯৮৪ ইং তারিখ ২৪৭৯ নং রেজিষ্ট্রীযুক্ত কবলা মূল বিক্রী করিয়া দখল অর্পন করন। তপশীল বি, এস রেকর্ডীয় রোশন আরা বেগম, স্বামী- মোহাম্মদ মিয়া তপশীলের বি, এস ১০২৩নং খতিয়ানের বি, এস ২৮৩৫ দাগ ০৬ শতকরা আদর তাহার স্বত্বাংশ ০.০৩ শতক সম্পত্তিত ভাগ দখল থাকাবস্থায় ৩-৬ নং বাদী/প্রার্থীগণকে রাখিয়া মত্যুবরণ করিল ৩-৬ নং প্রার্থীগণকে উক্ত রােশন আরা বেগম এর ত্যাজ্য বিত্ত সম্পত্তির মালিক স্বত্ববান হইয়া ভাগ দখল স্থিতি ছিলেন। তপশীলর বর্ণিত সম্পত্তির ১-২ ও ৭ নং বাদী/প্রার্থীগণকে তাহাদের মোরশী সূত্র অথার্ৎ তৎ পিতা মোহাম্মদ নাজের হইতে ০১.৮০ শতক এবং ৩-৬ নং বাদী/প্রাথীক তৎ মাতা বি, এস রেকর্ডীয় মালিক রোশন আরা বেগম হইতে ০.৩. শতক অর্থাৎ প্রার্থীগণ সর্বমােট ০১.৮০+০.৩০=২.১০ শতক সম্পত্তির মালিক স্বত্ববান হইয়া এই প্রতিপক্ষগণসহ সকলর জ্ঞাতসার তপশীলর সম্পত্তি তাঁর কাটার বড়া দিয়া সীমানা প্রাচীর নিমার্ণ করিয়া ভাগ দখলই স্থিতি রহিয়াছে।তিনি বাদী আমজাদ হোসেন আরো বলেন, তপশীলর সম্পত্তি প্রতিপক্ষগণের কোন স্বার্থ, দখল নাই ও কখনো ছিল না। বর্তমান জায়গার জমির মূল্য বদ্ধি পাওয়ায় প্রতিপক্ষগণ অতি লাভের আশায় প্রার্থীগণকে তপশীলর সম্পত্তি হইতে,জোর পূর্বক বেআইনীভাব উচ্ছেদ করার জন্য বহু পূর্ব হইতে ষড়যন্ত্র করিয়া আসিতেছে।মিচ মামলা অনুযায়ী ঘটনার তারিখ ও সময় অথার্ৎ গত ২৭/০৩/২০২৪ ইং তারিখ দুপুর ২.০০ ঘটিকার সময় প্রতিপক্ষগণ অজ্ঞাতনামা প্রতিপক্ষগণ নিয়া তপশীলের সম্পত্তিতে আসিয়া তপশীল সম্পত্তি প্রার্থীগণ ঘেড়া ভাঙ্গিয়া ফেলিয়া তথায় তপশীলর সম্পত্তি রকম পরিবর্তন করার জন্য অপচেষ্টায় লিপ্ত থাকেন। প্রাথীকগণ সাক্ষীগণের মারফত সংবাদ প্রাপ্ত হইয়া ঘটনারস্তরে অত্র আমমোক্তার অর্থাৎ ৭নং

মারধর করিতে উদ্ধত হয়। ৭ নং প্রার্থীর শোর চিৎকারে আশে পাশের লোকজন আগাইয়া আসিলে প্রতিপক্ষগণ পিছু যাইতে বাধ্য হয়। যাওয়ার সময় এই মর্মে হুমকি দিয়ে যায়, প্রতপক্ষগণকে যে কোন মুহুর্তে র্প্রীাতক ও অপরাপর প্রার্থীগণকে তপশীলের সম্পত্তি হইতে উচ্ছেদ করিবে, প্রার্থীকের সীমানা প্রাচীর ভাঙ্গিয়া ফেলিবে, বাঁধা মানবে না,রক্তপাত ঘটাইবে, শান্তি শৃঙ্খলা ভঙ্গ করিবে, তপশীলর সম্পত্তি রকম পরিবর্তন করিবে, জাল দলিল পত্র সৃজন করিবে মর্মে হুমকী প্রদান করেন।এমতাবস্তায় প্রতিপক্ষগণ যাহাতে তপশীলের সম্পত্তি হইত উচ্ছেদ করিতে না পারে, প্রার্থীকের সীমানা প্রাচীর ভাঙ্গিয়া ফেলিত না পারে, শান্তিভঙ্গ করিতে না পারে, তপশিলের সম্পত্তি রকম পরিবর্তন করিতে না পারে, জাল দলিল পত্র সৃজন করিতে না পারে তৎ মর্মে প্রতিপক্ষগণের বিরুদ্ধে ফৌজদারী কাযর্য বিধি ১৪৫ ধারার বিধান মতে প্রসিডিং ড্র করা একান্ত আবশ্যক।অতএব প্রার্থনা যে, মাননীয় আদালত দয়া পূর্বক উপরােক্ত কারণ অত্র দরখাস্ত গ্রহণ করতঃ ন্যায় বিচারের স্বার্থে প্রতিপক্ষগণের বিরুদ্ধে ফৌজদারী কার্যবিধি ১৪৫ ধারার বিধান মত প্রসিডিং ড্র সহ যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার বিহীত আদেশ দানে মর্জি হয় ।উক্ত জায়গাটিতে শান্তি বজায় রাখার জন্য বোয়ালখালী থানাকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে ।

ফেইসবুকে নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন


Archive

© All rights reserved © 2021 Dainiksomor.net
Design & Developed BY N Host BD