মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:০২ পূর্বাহ্ন

নোটিশ :
✆ন্যাশনাল কল সেন্টার:৩৩৩| স্বাস্থ্য বাতায়ন:১৬২৬৩|আইইডিসিআর:১০৬৬৫|বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন:০৯৬১১৬৭৭৭৭৭
সংবাদ শিরোনাম
আজারবাইজানে ফিদে ওয়ার্ল্ড ইয়ুথ অনুর্ধ্ব-১৬ দাবা অলিম্পিয়াড ১ অক্টোবর থেকে মার্কস অ্যাক্টিভ স্কুল দাবা প্রতিযোগিতা-২০২২ : ইস্পাহানী পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ চ্যাম্পিয়ন দূর্ভোগ এড়াতে অভিভাবকদের জন্য বসার স্থান করলেন এমপি মোছলেম উদ্দীন শেখ হাসিনা বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল রাষ্ট্রনায়ক শিগগিরই তিস্তা চুক্তি সই হবে: আশা প্রধানমন্ত্রীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান: জরিমানা ৫ হাজার বোয়ালখালীতে দুই শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু শুক্র-শনিবার সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ: সরকারি অফিস সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৩টা মুলকুতুর রহমান সড়ক মহল্লা উন্নয়ন পরিষদ কমিঠি গঠিত আজ জাতীয় শোক দিবস: ‘বাংলাদেশের জনক’ বা বঙ্গবন্ধু বলাটা নিতান্তই কম বলা

বন্দরনগরীতে ফুসফুসের বিনিময়ে চিকিৎসাকেন্দ্র কি আমাদের কাম্য?

ফেইসবুকে নিউজটি শেয়ার করুন...

সামিউল কবির:
বন্দরনগরী চট্টগ্রামের এক অনন্য সুন্দর মনোমুগ্ধকর পরিবেশ হলো সিআরবি এলাকা। যে কারও মন ভালো করে দেওয়ার মতো একটি স্থান সিআরবি। এই ইট-পাথরের রুক্ষ্ম-কঠিন শহরের উঁচু উঁচু দালান আর শিল্প প্রতিষ্ঠানের ভিড়ে শতবর্ষী বৃক্ষে ঘেরা সিআরবিকে এক টুকরো অক্সিজেন প্ল্যান্ট বলা চলে।
এখানে রয়েছে শতবর্ষী গাছ আবার। কোনো কোনোটির বয়স ১৫০ বছরেরও বেশি। ‘চট্টগ্রামের ফুসফুস’খ্যাত এই নৈসর্গিক এলাকা সিআরবি যা ২০০ বছর আগের ব্রিটিশদের রেখে যাওয়া সৌন্দযের্র নিদর্শন। এই শিরিষ তলায় প্রতি বছর বাংলা নববর্ষে বসে মেলা, চলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বলী খেলা। নাগরিক জীবনে ক্লান্ত নগরবাসী একটু পার্থিব জগতের সব ব্যস্ততা আর জীবনের হিসাব-নিকাশে যখন ক্লান্ত-শ্রান্ত, তখন বুক ভরে নিঃশ্বাস নেওয়ার জন্য এখানে এসে বসে। একেকটি গাছের দিকে তাকালে যেন নিজের অজান্তেই হারিয়ে যায় কোনো অজানা অতীতে, শেকড়ের সন্ধানে মন উজাড় হয়ে যায়।
আমাদের জনসংখ্যা অনুপাতে চিকিৎসাকেন্দ্র প্রয়োজন। তবে তা সবুজ সুন্দর নয়নাভিরাম প্রকৃতিকে ধ্বংস করে নয়। আর বন্দর নগরীর ফুসফুস কেটে যখন পরিকল্পনা করা হয় বেসরকারি হাসপাতাল তৈরির, তখন মনে হয় নিঃশ্বাস বুঝি বন্ধ হয়ে এলো। করোনা হলো না তো! মহামারি করোনাও কি আমাদের প্রাকৃতিক অক্সিজেন ভান্ডার চেনাতে পারল না?
এই শতবর্ষী বৃক্ষ নিরবে জীবনকে জীবন দেয়, প্রাণে করে প্রাণের সঞ্চার, দেয় বেঁচে থাকার জন্য অক্সিজেন অবিরাম। হাসপাতালের সিলিন্ডার যে অক্সিজেন সরবরাহ করে তার আয়ুষ্কাল মানবসৃষ্ট, তার ধারণক্ষমতা পূর্বনির্ধারিত। কিন্তু শতবর্ষী এই বৃক্ষরাজী যে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অক্সিজেন উৎপাদন করেই চলবে বিরামহীনভাবে!
ফুসফুসের বিনিময়ে চিকিৎসাকেন্দ্র কি আমাদের কাম্য? বেঁচে থাকুক শতবর্ষী শিরিষতলা, বেঁচে থাকুক সিআরবি, বেঁচে থাকুক বন্দরনগরী চট্টগ্রাম। জীবনে জীবন থাকুক অটুট আবহমান কাল। আশা করি সচেতন মহল, ইউনাইটেড গ্রুপ ও রেলওয়ে এ বিষয়ে বাস্তব ও গবেষণাধর্মী সিদ্ধান্ত নেবে।

ফেইসবুকে নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন


Archive

© All rights reserved © 2021 Dainiksomor.net
Design & Developed BY N Host BD